হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীর সড়ক দূর্ঘটনায় অকাল মৃত্যু

প্রকাশিত: ০৩:২০ পি এম , ১২ জুন ২০২০

দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হতে প্রাপ্ত সর্বশেষ রিপোর্ট অনুযায়ী ঠাকুরগাঁও জেলায়  আজ (১ জুন) নতুন করে ১১ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। 

নতুন আক্রান্ত ১১ জন হলেন সদর  উপজেলায় ৭ জন,বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় ৩ জন এবং হরিপুর উপজেলায় ১ জনের শরীরে নতুন করে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। 

শনিবার (১ জুন) ঠাকুরগাঁও জেলার সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মাহফুজার রহমান সরকার এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও জেলার সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মাহফুজার রহমান সরকার বলেন, " করোনা প্রতিরোধে সরকারের স্বাস্থ্য বিভাগ ও অন্যান্য বিভাগ সম্মিলিত ভাবে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। বর্তমান সময় খুবই সংকটপূর্ন। লকডাউন শিথিল হওয়ায় এ সময় করোনা সংক্রমনের ঝুঁকি সব চেয়ে বেশি।তাই আপনারা সবাই নিজ নিজ  বাড়িতে অবস্থান করুন। করোনা নিয়ে কেউ আতঙ্ক না ছড়ায়ে সবাই সচেতন হন। সরকারি নির্দেশাবলী ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন।"

আজকের সর্বশেষ রিপোর্টের ফলাফল নিয়ে ঠাকুরগাঁও জেলায় মোট ১২২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। তার মধ্যে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় ৩১ জন, পীরগঞ্জ উপজেলায় ২১ জন, রানীশংকৈল উপজেলায় ১২ জন, বালিয়াডাঙ্গী  উপজেলায় ৩৪ জন, হরিপুর উপজেলায় ২৪ জন।

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য গত বুধবার  (২৭ মে )  বিকালে জেলার করোনা প্রতিরোধ কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক ২৮ মে সোমবার সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত পর্যন্ত সীমিত পরিসরে  সকল প্রকার কাপড়ের দোকান,জুতার দোকান, কসমেটিক্স এর দোকান খোলার রাখার স্বীদ্ধান্ত নেওয়া  হয়। ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান সেলিমের স্বাক্ষরিত এক গণ-বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ঠাকুরগাঁও জেলায় মোট ১২২ জন করোনায় আক্রান্তের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ২৫ জন। তার মধ্যে হরিপুরে ৯ জন,পীরগঞ্জে ৪ জন, বালিয়াডাঙ্গীতে ৪ জন, রাণীশংকৈলে ৪ জন ও ঠাকুরগাঁও সদরে ৪ জন।

উল্লেখ্য, ঠাকুরগাঁও জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত ১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

লক ভালো আছে।

বিস্তারিতঃ না ফেরার দেশে সেতাবগঞ্জের মেধাবী ছাত্রী মৌ


সর্বশেষ

জনপ্রিয় খবর