হাবিপ্রবিতে করোনাকালিন অর্থ সহায়তা দিতে বিলম্ব: ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত: ০৩:৩৪ পি এম , ১৩ আগস্ট ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার: করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের অর্থসহায়তা দেবার ঘোষণা দিয়েছিলো হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(হাবিপ্রবি) প্রশাসন। এজন্য  গত ২১ মে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক প্রফেসর ড. মো.ইমরান পারভেজ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় “ছাত্র-কল্যান তহবিল” থেকে অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের এককালীন অর্থ সহায়তা দেওয়ার কথা জানানো হলেও ঘোষণার প্রায় তিন মাসেও তা আলোর মুখ দেখেনি। ২১ মে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর অর্থ সহায়তার জন্য আবেদনের শেষ সময় ছিলো ৫ই জুন।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়,
বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর অর্থ সহায়তা চেয়ে আবেদন করে দুই হাজার দু'শ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ৪০০ জনের আবেদন প্রক্রিয়ায় ভুল ও গরমিল থাকায় তা বাতিল করা হয়।

সর্বশেষ ঈদের ছুটির আগে ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগ সূত্রে জানা যায়, এই সংক্রান্ত খাতে ছয় লক্ষ’র মতো টাকা আছে। আগস্টের ৯ তারিখ থেকে(সম্ভাব্য) সব বিভাগের অনলাইন ক্লাস শুরু হবে এবং তার পূর্বেই অনুদানের টাকা মনোনীতদের দেওয়া হবে। তবে ইতোমধ্যে অনলাইনে ক্লাশ শুরু হলেও এখন পর্যন্ত সেই অর্থ সহায়তা পাননি আবেদন করা শিক্ষার্থীরা।

এনিয়ে দীর্ঘদিন থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করে আসছে শিক্ষার্থীরা। নাম প্রকাশ না করার শর্তে,অর্থ সহায়তার জন্য আবেদন করা ১৮ ব্যাচের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের এক শিক্ষার্থী জানান, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সঠিক সময়ে অনুদানের অর্থ দিতে সম্পূর্ণ ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।তাদের উচিৎ ছিলো অনলাইনে ক্লাশ শুরু হওয়ার আগেই এবং করোনার মধ্যেই ঘোষণাকৃত এই অর্থ সহায়তা দেওয়া। তাদের এই বিলম্ব আমাদের আশাকে যেমন নিরাশায় পরিণত করেছে, তেমনি ক্ষোভের সঞ্চার করেছে।আমরা চাইবো বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন অতিসত্বর এই অর্থ সহায়তা প্রদান করবে।

এ ব্যাপারে  ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক প্রফেসর ড. মো. ইমরান পারভেজ এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, উপাচার্য মহোদয় এর ইচ্ছা শিক্ষার্থীরা যেন এই অর্থ শিক্ষা কার্যক্রমে কাজে লাগাতে পারে।আগামী রবিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের সভা অনুষ্ঠিত হলে এর পর  দ্রুততম সময়ের মধ্যে এ অর্থ সহায়তা প্রদান করা হবে বলে তিনি আশ্বাস দিয়েছেন।


সর্বশেষ

জনপ্রিয় খবর