বিরামপুরে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষন! মামলা আটক-২

প্রকাশিত: ০৫:৫০ পি এম , ১৭ অক্টোবর ২০২০

দিনাজপুর জেলার বিরামপুর পৌরসভার  মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী (১৫) কে জোর পুবর্ক দুই জন দস্যূ মিলে ঐ ছাত্রীকে বাড়ি থেকে তুলি নিয়ে গিয়ে  ধর্ষণের ঘটনা জানা যায়। তথ্য মতে জানা যায় যে,
বিরামপুর পৌরসভা এলাকার হাবিবপুরে এমন ঘটনাটি ঘটে। এ বিষয়ে
ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে বিরামপুর থানায় মামলা করলে বিরামপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামানের নেতৃত্বে পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুই ধর্ষক কে আটক করেন।

মামলা সুত্রে জানা যায়,গত ১৬ই (অক্টেম্বার),রাত্রী আনুমানিক ৮ ঘটিকার সময়,বিরামপুর পৌর এলাকার মামুদপুর মহল্লার সিরাজুল ইসলামের পুত্র নাহিদ ইসলাম(২০) ও তার বন্ধূ একই মহল্লার  এনামুলের পুত্র সুমন আহম্মেদ(এস্তামুল)(২৪) মিলে একই মহল্লার মিজানুর রহমান এর কন্যা সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রী ফারজানা আকতার (১৫) কে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল।

ফারজানা আকতার সম্মত না হওয়ায় রাত্রী (আনুমানিক) ৮ ঘটিকার সময় ঐ ছাত্রীকে বাড়ির সামনে থেকে জোর পুবর্ক তুলে নিয়ে গিয়ে ভিকটিমের বাড়ির পার্শ্বে একটি কলা বাগানে নিয়ে যায়। কলা বাগানে নিয়ে গিয়ে দুই ধর্ষক মিলে ভিকটিমের মুখে ওড়না গুজে জোর পুর্বক ধর্ষণ করেন।
উক্ত সময়ে প্রতিবেশিরা ধর্ষীতা ছাত্রীর গ্যাংগানির শব্দ শুনতে পেয়ে এগিয়ে আসলে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়। ঐ দিন রাতে ভিকটিমের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে দু ধর্ষক কে পুলিশ  আটক করেন।


সর্বশেষ

জনপ্রিয় খবর