দিনাজপুরের বিরামপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের চেয়ার পুড়ে দিলেন পরিষদ সদস্য

প্রকাশিত: ১০:৪৫ পি এম , ৩০ জানুয়ারী ২০২১

রেজওয়ান আলী,বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি-দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার কাটলা ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের চেয়ার পূড়িয়ে দিলেন ওয়ার্ড সদস্য। জানা যায়,উপজেলার কাটলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নাজির হোসেনের বসার চেয়ার ও গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র প্রকাশ্যে পুড়িয়ে দিয়েছেন স্থানীয় ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলাম। অদ্য শনিবার ৩০শে (জানুয়ারি) সকাল বেলায় ইউপি পরিষদ থেকে ছিঁনিয়ে নিয়ে কাটলা বাজারের তিনমাথা মোড়ে ইউপি চেয়ারম্যানের চেয়ার ও বেশকিছু কাগজপত্র পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে কাটলা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান নাজির হোসেন বলেন,সকালে তথ্য সেবাকেন্দ্রের উদ্যোক্তা সাখাওয়াত হোসেনের মাধ্যমে জানতে পারি ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলাম পরিষদ থেকে আমার বসার চেয়ার এবং সচিবের ঘর থেকে রেজুলেশন খাতাসহ গুরুত্বপূর্ণ কাগজ নিয়ে যায়। পরে কাটলা বাজারের গোডাউন মোড় তিনমাথা এলাকায় চেয়ারের ওপর কাগজ রেখে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ব্যাপারে আমি ওই মেম্বারের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করব বলে জানান।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলামের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন,দীর্ঘদিন থেকে পরিষদের বিভিন্ন প্রকার ভাতাসহ অনেক অনিয়ম করে আসছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান নাজির হোসেন। কয়েক দিন আগে বিধুবা ভাতার কার্ডগুলো নিজের হেফাজতে নিয়ে পছন্দের ব্যক্তিদের প্রদান করেছেন। ভাতার কার্ডগুলো পরিষদের কোন সদস্যের মনোনীত ব্যক্তিদের দেয়া নয়। এই জন্যই আমি সকালে ওই ভবন থেকে চেয়ার নিয়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছি।

এ বিষয়ে বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনিরের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন,সকাল বেলায় এমন খবরে দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে পোড়ানো চেয়ারটি উদ্ধার করতঃ পরিষদে রাখা হয়। এখন পর্যন্ত কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ বিষয়ে বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পরিমল কুমার সরকার বলেন,আগুনের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। কি কারণে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে বিষয়গুলো জানার জন্য পরিষদের সব সদস্যকে অফিসকক্ষে ডাকা হয়েছে। বিস্তারিত জানার পরে বোঝা যাবে আসল ঘটনা কি।


সর্বশেষ

জনপ্রিয় খবর