মিয়ানমারে অস্ত্র সরবরাহ সচল রাখতে চায় দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার ৯টি দেশ

প্রকাশিত: ০৯:৪৭ পি এম , ২৮ মে ২০২১

 মিয়ানমারে অস্ত্র বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা না দিতে জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার ৯টি দেশ। লিখটেনস্টাইনের এক কূটনীতিককে উদ্ধৃত করে করা এক প্রতিবেদনে বেনার নিউজ এ তথ্য দিয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

বেনার নিউজ যুক্তরাষ্ট্রের অর্থায়নে পরিচালিত রেডিও ফ্রি এশিয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট। লিখটেনস্টাইনের ওই কূটনীতিক তাদেরকে বলেছেন, দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার ৯টি দেশ মিয়ানমার নিয়ে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে খসড়া প্রস্তাব তোলা দেশগুলোর কাছে লেখা এক চিঠিতে প্রস্তাব থেকে একটি বাক্য ফেলে দিতে অনুরোধ করেছেন।

ওই বাক্যে মিয়ানমারে ‘তাৎক্ষণিকভাবে প্রত্যক্ষ-অপ্রত্যক্ষ সব অস্ত্র ও গোলাবারুদ বিক্রি, সরবরাহ ও স্থানান্তর বন্ধে’ আহ্বান জানানো হয়েছিল। দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার ১০টি দেশের জোট আসিয়ানের ৯ সদস্যের পক্ষে চিঠিটি পাঠানো হয়েছে; এ দেশগুলোর তালিকায় মিয়ানমার নেই বলে জানিয়েছে বেনার নিউজ।

কেন বাক্যটি ফেলে দেওয়া দরকার, চিঠিটিতে তার কোনো কারণ উল্লেখ করা হয়নি বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘে লিখটেনস্টাইন মিশনের সহকারী স্থায়ী প্রতিনিধি জর্জ স্পারবার। বেনার নিউজ ওই চিঠির কোনো অনুলিপি পায়নি।

তাদের প্রতিবেদন বিষয়ে প্রতিক্রিয়া চেয়ে ইমেইল পাঠানো হলেও জাতিসংঘের লিখটেনস্টাইন মিশন তাৎক্ষণিকভাবে তার জবাব দেয়নি বলে জানিয়েছে রয়টার্স। এ প্রসঙ্গে ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্রের মন্তব্য চাওয়া হলে তিনি এ ধরনের কোনো চিঠির বিষয়ে অবগত নন বলে জানান এবং এ বিষয়ে আসিয়ানের সঙ্গে কথা বলতে বলেন।

আসিয়ানের এক মুখপাত্রের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করা হলে তাৎক্ষণিকভাবে তার কাছ থেকেও সাড়া মেলেনি। মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক সরকারকে উৎখাত করে সামরিক বাহিনীর ফেব্রুয়ারিতে ক্ষমতা দখলের পর থেকেই দেশটিতে তুমুল অস্থিরতা বিরাজ করছে।

সেখানে রক্তক্ষয় থামাতে এবং সামরিক জান্তা ও বিরোধীদের মধ্যে আলোচনার উদ্যোগ নিতে আসিয়ান কূটনৈতিক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে মিয়ানমার নিয়ে উত্থাপিত প্রস্তাবটির ওপর ভোট হওয়ার কথা থাকলেও গত সপ্তাহে তা স্থগিত ঘোষণা করা হয়। সেসময় কিছু কূটনীতিক বলেছিলেন, প্রস্তাবের পক্ষে আরও দেশের সমর্থন পেতেই এমনটা করা হয়েছে।


সর্বশেষ

জনপ্রিয় খবর