লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডে ঝালকাঠিতে মামলা !

প্রকাশিত: ০৬:১১ পি এম , ২৫ ডিসেম্বর ২০২১

সুগন্ধা নদীতে বরগুগা এমভি বহু-১০ আসন লঞ্চ অনিকাণ্ড ও শক্তিহানির মনের ঝালকাঠি প্রধান অপমৃত্যুর গ্রুপ করা হয়েছে।

শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) গঠনবাদী হয়ে পোনাবালিয়া ইউনিয়নের গ্রামপুলিশ জাহাঙ্গীর হোসেন এ জোট করেন। গণভারপ্রাপ্ত নিউইয়র্ক (ওসি) খলিলুর রহমান জাগো শান্তিকে নিশ্চিত করেছেন।

পোনালিয়া ইউনিয়নের দেউরী প্রান্তের দিকে সুগন্ধা নদীতে প্রথম দিন রাত ৩টার ঢাকা থেকে বরগুনাগামী এমভি-১০ লঞ্চে অগ্নিকাণ্ড। গ্রহ এখন পর্যন্ত ৪১ এর প্রাণহানি হয়েছে। নিখোঁজ শাতাধিক।

আগুনে দগ্ধ ৮১ এর মধ্যে বরিশাল শ-ই-বাংলা পাকিস্তানের ডাক্তারি পরীক্ষাধীন ৪৬ জন। ১৯ সংখ্যায় ঢাকায়। ১৬ জন নেতা হয়ে বাড়ি ফিরে।

এর মধ্যে, পুড়ে এগিয়ে লঞ্চ কতজন ছিল তার সঠিক তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না।

 বিআইব্লিউটি এ সিটি লঞ্চ প্রায় ৪০০ ছিল। তবে লঞ্চে থেকে সক্রিয় নেতাদের দাবি, এই লঞ্চে ছিল ৮০০ থেকে এক হাজার।

পরিস্থিতি পরিদর্শনে নৌপরিবহন প্রতি কংগ্রেসে গিয়ে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আমাদের মতলবে ৩৫০-এর মতোঞ্চ ছিল। এর বেশি হলে নিরাপত্তা দেখাতে হবে।

আগুনে পোড়া লঞ্চ পরিদর্শনে গিয়ে গত শনিবার নৌপরিবহন স্থানীয় সংসদীয় স্থায়ী সদস্য শাজাহান খান জাগো নিউজকে বলেন, ইঞ্জিনে বিস্ফোরণ থেকে লঞ্চে আগুন লেগেছে।

 এখনো লঞ্চের পক্ষের দল, তাদের খুঁজতে কাজ করছে ডুবুর দল। তাদের সঙ্গে নদীতে নৌকা নিয়েপ্ন নিখোঁজদের স্বজনরা।


সর্বশেষ

জনপ্রিয় খবর